শেষে তাচ্ছিল্য তালিবানের কাছেও! ৭১-এ ভারতের কাছে হারের স্মৃতি উস্কে দিয়ে পাকিস্তানকে খোঁচা তালিবান নেতার - nagariknewz.com

শেষে তাচ্ছিল্য তালিবানের কাছেও! ৭১-এ ভারতের কাছে হারের স্মৃতি উস্কে দিয়ে পাকিস্তানকে খোঁচা তালিবান নেতার


নিয়াজির আত্মসমর্পণের ছবি দেখিয়ে তালিবান নেতা আহমেদ ইয়াসির ট্যুইটারে লেখেন- এই তো তোমাদের মুরোদ!

ডেস্ক রিপোর্ট: যে তালিবানের জন্ম পাকিস্তানে। যে তালিবানকে কাবুলে ক্ষমতায় বসাতে পর্দার আড়াল থেকে সব রকমের কলকাঠি নাড়িয়েছে ইসলামাবাদ। সেই তালিবান‌ই এখন একাত্তরের পাক-ভারত যুদ্ধের কথা বলে পাকিস্তানের কাঁটা ঘায়ে নুনের ছিটে দিচ্ছে। পাকিস্তান-তালিবান পেয়ার এখন অতীত। তালিবান দ্বিতীয় দফায় কাবুল দখলের পর উভয়ের মধুচন্দ্রিমা বেশি দিন স্থায়ী হয় নি। সীমান্তে পাক সেনা বাহিনীর অবস্থান তাক করে গোলাগুলি পর্যন্ত ছুড়েছে তালিবান বাহিনী।

পাক-আফগান সীমান্তের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশ বরাবরই ইসলামাবাদের গলার কাঁটা। এলাকার উপর পাকিস্তান প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ তেমন নেই। তালিবানের পাকিস্তানি সংস্করণ তেহরিক-ই-তালিবানকে নিয়ে জেরবার পাক সরকার। সাম্প্রতিক সময়ে তেহরিক-ই-তালিবানের বিরুদ্ধে জোরদার সামরিক অভিযান শুরু করেছে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের সরকার।

তেহরিক-ই-তালিবানের অস্ত্রশস্ত্র, রসদ আসে আফগানিস্তান থেকেই। এমনকি পাক সেনার আক্রমণের মুখে তারা আশ্রয়‌ও নেয় আফগানিস্তানে। অভিযানে নেমে তালিবান ঠ্যাঙাতে পাকিস্তানের ফৌজ সময় সময় সীমান্ত পেরিয়ে আফগানিস্তানেও ঢুকে পড়ছে। বিষয়টি মোটেই ভালভাবে নেয় নি কাবুলের তালিবান সরকার। এমনিতেই নানা ইস্যুতে তালিবান-পাকিস্তান ঝামেলা বেড়েই চলেছে। তার ওপর নিজেদের ভূখন্ডে পাকিস্তান সেনার হানা। পাকিস্তানকে ইতিমধ্যেই বার কয়েক সতর্ক করে দিয়েছে তালিবান সরকার। সীমান্তে দুই তরফের বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটে গেছে। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার, একাত্তরের বাংলাদেশ যুদ্ধে ভারতের হাতে পাকিস্তানের শোচনীয় পরাজয়ের কথা তুলে ট্যুইটারে পাকিস্তানকে আচ্ছাসে রগড়ে দিলেন তালিবানের বড় নেতা আহমেদ ইয়াসির।

তালিবান নেতা আহমেদ ইয়াসিরের ট্যুইট।

একাত্তরের যুদ্ধে বিশ্রী পরাজয় ও পূর্ব পাকিস্তান হাতছাড়া হ‌ওয়ার বেদনা এখনও ভুলতে পারে নি পাকিস্তান। ৫১ বছর পরেও ঘা শুকোয় নি। এবার এই স্পর্শকাতর জায়গায় ডলা দিল তালিবান‌ও, যাদের জন্য কিনা জান পর্যন্ত কুরবান করেছিল পাকিস্তান আর্মির ফৌজিরা। একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে ভারতীয় বাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল জগজিৎ সিং অরোরার কাছে ৯৩ হাজার সৈন্য সহ আত্মসমর্পণ করেছিলেন পাক আর্মির লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির আবদুল্লাহ খান নিয়াজি। নিয়াজির আত্মসমর্পণের সেই ঐতিহাসিক ছবি ট্যুইটারে পোস্ট করে পাকিস্তানের সামরিক সক্ষমতাকে বিদ্রুপ করেন আহমেদ ইয়াসির। নিয়াজির আত্মসমর্পণের ছবি দেখিয়ে তালিবান নেতা লেখেন- এই তো তোমাদের মুরোদ!

শেষে তালিবানের অপমান ও বদদুয়াও হজম করতে করতে হচ্ছে পাকিস্তানকে। এদিকে পাকিস্তানকে শিক্ষা দিতে তিক্ততা ভুলে ভারতের সঙ্গে পর্যন্ত দোস্তি করতে রাজি আফগানিস্তানের তালিবান সরকার।‌ যে ছবি পাকিস্তানের জন্য যন্ত্রণার, তাই ভারতের জন্য গর্বের। একাত্তরের যুদ্ধের স্মরণীয় ছবি পোস্ট করে ইসলামাবাদকে লজ্জা দেওয়ার পাশাপাশি হয়তো নয়াদিল্লিকে খুশি করতে চাইছে তালিবান।

Feature image source – Archives.


Leave a Reply

Your email address will not be published.