গভীর রাতে তীব্র ভূমিকম্প পশ্চিম নেপালে, ছয়জনের মৃত্যু, ক্ষয়ক্ষতি আরও বাড়তে পারে - nagariknewz.com

গভীর রাতে তীব্র ভূমিকম্প পশ্চিম নেপালে, ছয়জনের মৃত্যু, ক্ষয়ক্ষতি আরও বাড়তে পারে


ডেস্ক রিপোর্ট: বড় মাপের ভূমিকম্পে নেপালে এখনও পর্যন্ত ছয়জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার রাত ১ টা বেজে ৫৭ মিনিট ২৪ সেকেন্ড নাগাদ অনুভূত এই ভূমিকম্পের উৎসস্থল পশ্চিম নেপালের ডোটি জেলার খাপটাড জাতীয় উদ্যান বলে জানিয়েছে দেশটির ন্যাশনাল সিসমোলজিক্যাল সেন্টার। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ধরা পড়েছে ৬.৩ ম্যাগনিটিউট। ভূ-গর্ভের দশ কিলোমিটার গভীর কম্পনটি তৈরি হয়েছিল বলে জানানো হয়েছে।

এনসিএস-এর ট্যুইট।

প্রবল কম্পনের জেরে একটি বাড়ি ভেঙে পড়লে ওই ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডোটি জেলার পুলিশ প্রশাসনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান। হতাহতের সংখ্যা আরও ‌বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা। এর আগে রাত ৯টা ৭ মিনিট এবং ৯টা ৫৬ মিনিটে এক‌ই উৎসস্থল থেকে ৫.৭ ও ৪.১ রিখটার স্কেলের দুটি কম্পনের সৃষ্টি হয়। রাজধানী কাঠমান্ডু সহ পশ্চিম নেপালের সর্বত্র মাটি কেঁপে উঠলে আতঙ্কে ঘরবাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসে মানুষ। দিল্লি সহ উত্তর‌ ভারতের বিস্তীর্ণ অঞ্চলেও কম্পন অনুভূত হয়।

এএনআই-এর ট্যুইট।

নেপালের প্রধানমন্ত্রী শেরবাহাদুর দেউবা জানিয়েছেন, বিপর্যয়ের খবর পাওয়া মাত্রই ‌দুর্গতদের ত্রাণ ও উদ্ধারের নির্দেশ দেওয়া ‌হয়েছে। এক ট্যুইট বার্তায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

২০১৫- ১৬ এপ্রিল সকালে ভয়াবহ ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত হয়েছিল কাঠমান্ডু সহ সংলগ্ন এলাকা। ৭.৮ মাত্রার ওই ভূমিকম্পের জেরে ৯ হাজারের বেশি মানুষের জীবনহানি হয়েছিল। আহতের সংখ্যা ছিল ২২ হাজার। আট লক্ষ ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল সেবার।

Feature Image is representational.


Leave a Reply

Your email address will not be published.