আমেরিকায় ওয়ালমার্টের মলে গুলিতে ১০ জনকে খুন করে আত্মঘাতী ম্যানেজার - nagariknewz.com

আমেরিকায় ওয়ালমার্টের মলে গুলিতে ১০ জনকে খুন করে আত্মঘাতী ম্যানেজার


ডেস্ক রিপোর্ট: আমেরিকায় ওয়ালমার্ট-এর সুপার মার্কেটে বন্দুকবাজের হামলায় কমপক্ষে ১০ জনের মৃত্যু।‌ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত ১০ টা ১২ মিনিটে ভার্জিনিয়া প্রদেশের চেসাপিকে ওয়ালমার্টের মলে এই ঘটনা ঘটেছে। একটি সূত্র বলছে, পুলিশের গুলিতে বন্দুকবাজের‌ও মৃত্যু হয়েছে। যদিও অন্য একটি সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, গুলিবর্ষণ শেষে আত্মহত্যা করেছে ঘাতক। মলটির স্টোর ম্যানেজার‌ই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে খবর মিলেছে।

ট্যুইট করে ঘটনাটি জানান অনেকেই।

ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। মলের ভেতরে যখন ক্রেতারা কেনাকাটায় ব্যস্ত ছিলেন, তখনই হঠাৎ করে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল থেকে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু  দেয় বন্দুকবাজ। আতঙ্কে দিগ্বিদিক হারিয়ে দৌড়োদৌড়ি শুরু করে দেন মলের কর্মী ও ক্রেতারা। ওয়ালমার্টের  কর্মী ও ক্রেতাদের অনেকেই বাইরে এসে মিডিয়ার সামনে ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন। সামাজিক মাধ্যমেও ভিডিও শেয়ার করেছেন অনেকে।‌ প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা যাচ্ছে, গুলিবর্ষণ করতে করতে এক সময় নিজের দিকেই স্বয়ংক্রিয় রাইফেলটি তাক করে দেয় বন্দুকবাজ। এর পর ট্রিগার চেপে আত্মহত্যা করে সে। ঘাতক যে তাদের‌ই একজন কর্মী, তা ওয়ালমার্ট কর্তৃপক্ষ স্বীকার করে নিয়েছে।

হামলার পর ওয়ালমার্ট স্টোর ঘিরে রেখেছে পুলিশ। ফটো সোর্স-ট্যুইটার।

প্রত্যক্ষদর্শীরা সংবাদ মাধ্যমের সামনে জানিয়েছেন, ওয়ালমার্ট স্টোরের নাইট ম্যানেজার হঠাৎ করে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল উঁচিয়ে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে। প্রথমেই সামনে পড়া এক মহিলাকে মাথায় গুলি করে হত্যা করে ঘাতক। এর পর  স্টাফরুমে ঢুকে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে। এরপর সুপার মার্কেটের গ্রোসারি বিভাগে ঢুকে আবার গুলি চালাতে শুরু করে। এখানেই  মাথায় গুলি করে নিজেকে শেষ করে দেয় বন্দুকবাজ। ঠিক কী কারণে এই হামলা করল ওয়ালমার্টের ম্যানেজার, তা জানার চেষ্টা করছে চেসাপিকের পুলিশ।

বন্দুকবাজের আক্রমণে হত্যাকান্ড আমেরিকার একটি বড় আইনশৃঙ্খলাজনিত সমস্যা। অনেকেই একে আইনশৃঙ্খলার চাইতে সামাজিক সমস্যা বলতে বেশি পছন্দ করেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বহু রাজ্যে আগ্নেয়াস্ত্র রাখা ও বহন নাগরিকদের মৌলিক অধিকারের মধ্যে পড়ে। মাত্র দিন কয়েক আগেই কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের এলজিবিটি সম্প্রদায়ের একটি নাইটক্লাবে বন্দুকবাজের গুলিতে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ওয়ালমার্টের বিপণিতে হামলার ঘটনাও নতুন নয়। ২০১৯-এ টেক্সাস রাজ্যের এল-পাসো শহরে ওয়ালমার্টের বাজারে বন্দুকবাজের হামলায় ২৩ জন খুন হয়েছিল। আমেরিকায় বন্দুক হামলার ঘটনা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। ২০২২ শেষ হতে চলল। ‘গান ভায়োলেন্স আর্কাইভ ওয়েবসাইট’- এর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই বছর এখনও পর্যন্ত আমেরিকা জুড়ে ছয়শোর‌ও বেশি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে।

Feature Photo Credit-AP/ The New York Times.


Leave a Reply

Your email address will not be published.