ভারতীয় ফুটবলের রাহুমুক্তি! ১২ দিন পর এ‌আইএফ‌এফ-এর উপর থেকে নির্বাসন তুলল ফিফা


ডেস্ক রিপোর্ট : বিপদ কাটল ভারতীয় ফুটবলের উপর থেকে। সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের (এআইএফ‌এফ) উপর থেকে নির্বাসন তুলে নিল ফিফা। শুক্রবার জুরিখের স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটায় সংস্থার অফিসিয়াল সাইটে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে এআই‌এফ‌এফ-এর উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি জানিয়েছে ফিফা। পরে নিজেদের ট্যুইটার হ্যান্ডেলেও খবরটি উল্লেখ করেছে আন্তর্জাতিক ফুটবলের এই সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। ফিফার এই সিদ্ধান্তে দেশের ফুটবলের সঙ্গে জড়িত সকল পক্ষ হাঁফ ছেড়ে বাঁচল।

ফিফার ট্যুইট।

দেশের ৭৬ তম স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনকে নির্বাসনে পাঠিয়েছিল ফিফা। ফিফার ঘোষণা শোনা মাত্রই দেশের ফুটবল মহলের মেরুদন্ড দিয়ে আতঙ্কের ঠান্ডাস্রোত বয়ে গিয়েছিল। নির্বাসন বিলম্বিত হলে ভারতীয় ফুটবলের চূড়ান্ত সর্বনাশ হয়ে যেত। আগামী অক্টোবরে ভারতে বসতে চলেছে অনূর্ধ্ব-১৭ মহিলা বিশ্বকাপের আসর। নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে এই মেগা ইভেন্ট আয়োজনের সুযোগ হারাত এআই‌এফ‌এফ। দীর্ঘদিন ধরেই সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের অন্দরমহলে ডামাডোল চলছে। আর তার‌ই চরম খেসারত দিতে বসেছিল দেশের ফুটবল মহল।

এ‌আইএফ‌এফ-এ অচলাবস্থা চলতে থাকায় মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্টে। সুপ্রিম কোর্ট ফেডারেশনে প্রশাসক কমিটি ( সিওএ) বসানোর নির্দেশ দিলে বিষয়টি ভালভাবে নেয় নি ফিফা। কোনও দেশের জাতীয় ফুটবল সংস্থায় তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ পছন্দ করে না ফিফা। ফলে এআই‌এফ‌এফ-এর উপর নেমে আসে শাস্তির খাঁড়া। গত ১৪ অগাস্ট মধ্যরাতে জারি করা নির্দেশিকায় ফিফা স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছিল- প্রশাসক কমিটি বাতিল করে দিয়ে এআই‌এফ‌এফ-এ দ্রুত নির্বাচনের ব্যবস্থা করলেই একমাত্র নির্বাসন রদ হতে পারে।

দেশের ফুটবলের স্বার্থে বিষয়টিতে‌ হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হয় কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রকের পরামর্শে নির্দেশ প্রত্যাহার করে নেয় সুপ্রিম কোর্ট। তাদের নির্দেশ মতোই সব পদক্ষেপ করা হয়েছে- কেন্দ্রীয় সরকার ফিফাকে এই আশ্বাস দেওয়ার পরেই সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ফিফা।

সব মিলিয়ে বারোদিন নির্বাসনে ছিল ভারতীয় ফুটবল। শুক্রবার এআই‌এফ‌এফকে চিঠি দিয়ে ফিফা জানিয়েছে- ভারত সরকারের আশ্বাস ও সুপ্রিম কোর্টের পদক্ষেপের কারণে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়া হলেও সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের নির্বাচন সংক্রান্ত কাজকর্মের উপর কঠোর নজরদারি চালাবে তারা। ২৩ অগাস্ট মামলার শুনানি চলাকালে এ‌আই‌এফ‌এফ-এর অপসারিত সভাপতি প্রফুল্ল প্যাটেল‌‌কেই ভারতীয় ফুটবলের ধ্বংসের জন্য দায়ী করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়।

Feature image is representational.


Leave a Reply

Your email address will not be published.