পুরভোটে ছাপ্পা মামলায় জাতীয় নির্বাচন কমিশনকেও যুক্ত করার নির্দেশ ডিভিশন বেঞ্চের


বিজেপির আইনজীবীর আর্জি মেনে ছাপ্পা মামলায় কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনকেও অংশ করে নেওয়ার নির্দেশ দিলেন বিচারপতিরা। এই ঘটনা নজিরবিহীন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

কলকাতা :পুরভোটে ছাপ্পা মামলায় জাতীয় নির্বাচন কমিশনকেও যুক্ত করার নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। সোমবার মামলার শুনানিতে ১০৮ পুরসভার সমস্ত বুথের সিসি টিভি ফুটেজ সংরক্ষণের‌ও নির্দেশ দেয় হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রাজশেখর মান্থার ডিভিশন বেঞ্চ। বিজেপির আইনজীবীর আর্জি ছিল মামলায় জাতীয় নির্বাচন কমিশনকেও যুক্ত করার। আর্জি মঞ্জুর করেন বিচারপতিরা।

পুরভোটে ছাপ্পা মামলায় জাতীয় নির্বাচন কমিশনকেও সামিল করার নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের।

ডিসেম্বরে কলকাতার পুরভোট দিয়ে আদালতে মামলা শুরু বিরোধীদের। মাঝে চার কর্পোরেশনের ভোট নিয়েও আদালতে যায় বিজেপি। বিরোধীদের দাবি ছিল একটাই- সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের স্বার্থে প্রত্যেকটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করতে হবে। কলকাতা ও চার কর্পোরেশনের ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনের বিষয়টি রাজ্য নির্বাচন কমিশনের উপর ছেড়ে দিয়েছিল আদালত। তবে কলকাতা ও চার কর্পোরেশনের ভোটে প্রতিটি বুথে সিসি টিভি বসানোর নির্দেশ দেয় ডিভিশন বেঞ্চ। কমিশন রাজ্যের পুলিশ দিয়েই ভোট করার সিদ্ধান্ত নেয়। হাইকোর্ট প্রতিটি বুথে সিসি টিভি লাগানোর নির্দেশ দেওয়ার পরেও কলকাতা ও চার কর্পোরেশনের ভোটে ছাপ্পা আটকানো যায় নি বলে বিরোধীদের অভিযোগ‌।

জলপাইগুড়ির একটি বুথে বহিরাগতদের হামলার পরের ছবি।

১০৮ পুরসভার ভোটের আগেও হাইকোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিল বিজেপি। কিন্তু এবারেও কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে সুস্পষ্ট কোন‌ও নির্দেশ দেয় নি ডিভিশন বেঞ্চ। ২৭ ফেব্রুয়ারি ভোটের দিন রাজ্য জুড়ে অবাধে ছাপ্পা ও সন্ত্রাসের ছবি দেখা গেছে। কলকাতার পুরভোট থেকেই আদালতে মামলা ঝুলছিল। এরপর যুক্ত হয় চার কর্পোরেশনের ভোট। সবশেষে ১০৮ পুরসভার নির্বাচন। গোটা পুর নির্বাচনে‌ই বেনজির ছাপ্পা, বুথ দখল এবং রিগিং হয়েছে- এই অভিযোগে ফের আদালতে মামলা করে রাজ্য বিজেপি। প্রত্যেকটি মামলাকে এক জায়গায় এনে শুনানির নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ।

সোমবার মামলার শুনানির সময় পুরভোটে ছাপ্পার ঘটনার তদন্তে সিবিআই অথবা জাতীয় নির্বাচন কমিশনকে নিয়োগ করার দাবি জানান বিজেপির আইনজীবী। কলকাতা ও চার কর্পোরেশনের ভোটের সমস্ত সিসিটিভি ফুটেজ আগেই সংরক্ষণের‌ নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। এদিন ১০৮ পুরসভার প্রত্যেকটি বুথের সিসিটিভি ফুটেজ‌ও সংরক্ষণ করতে বললেন বিচারপতিরা। বিজেপির দাবি মেনে জাতীয় নির্বাচন কমিশনকেও মামলার অংশ করে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। আগামী ১১ মার্চ মামলার পরবর্তী শুনানি। রাজ্যের পুরভোটের মামলায় কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনকে সামিল করার নির্দেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Photo- File.


Leave a Reply

Your email address will not be published.