মুকুলকে ‘বাতুল’ বলে কটাক্ষ শুভেন্দুর, পিএসি’র চেয়ারম্যান পদ থেকেও হটানোর দাবি বিরোধী দলনেতার


বিধানসভা থেকে ফিরে যাওয়ার আগে সংবাদ মাধ্যমের সামনে স্পিকাররের‌ও সমালোচনা করেন বিরোধী দলনেতা।

কলকাতা : মুকুল রায়কে পাগল বললেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ‘ পাগল ‘ মুকুল রায়কে অবিলম্বে বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির ( পিএসি ) চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের দাবিও জানালেন শুভেন্দু। মঙ্গলবার রাজ্য বিধানসভার প্রবেশপথে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ” পাগল মুকুল রায়কে পিএসি’র চেয়ারম্যান পদে বসিয়ে রাখা হয়েছে। স্পিকারের উচিত মুকুলকে অপসারণ করে ওই পদটি বিজেপিকে দেওয়া। কারণ পরিষদীয় রীতিনীতি অনুযায়ী তা বিরোধী দলের প্রাপ্য। ” জাতীয় ভোটার দিবস উপলক্ষে এদিন রাজ্য বিধানসভায় আসেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বি আর আম্বেদকরের মূর্তিতে মাল্যদান করেন রাজ্যপাল। ধনখড়কে স্বাগত জানাতে বিধানসভায় হাজির ছিলেন বিরোধী দলনেতা।

বিধানসভার গেটে সাংবাদিকদের মুখোমুখি শুভেন্দু অধিকারী।

স্পিকার রাজভবনের সঙ্গে অসহযোগিতা করছেন বলে বিধানসভায় এসে অভিযোগ করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। রাজ্যপালের সঙ্গে সহমত বিরোধী দলনেতাও। অধ্যক্ষ পরিষদীয় রীতিনীতির ধার ধারেন না বলে এদিন অভিযোগ করেন শুভেন্দু। স্পিকার কীভাবে পরিষদীয় রীতিনীতি লঙ্ঘন করছেন তার উদাহরণ হিসেবে মুকুল রায়কে পিএসি’র চেয়ারম্যান পদ দেওয়ার প্রসঙ্গ টেনে আনেন শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দু বলেন, ” স্বীকৃত বিরোধী দলকে বিধানসভায় কোন‌ও গুরুত্ব দেওয়া হয় না। বিজেপির বিধায়কদের ভাঙিয়ে এনে তাঁদের গুরুত্বপূর্ণ পদ দিচ্ছেন অধ্যক্ষ। পরিষদীয় রীতিনীতি অনুযায়ী পিএসি’র চেয়ারম্যান পদ বিরোধীদের প্রাপ্য হলেও দলত্যাগী মুকুল রায়কে পদটি দেওয়া হয়েছে। “

সপুত্র মুকুল রায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিতেই মুকুলকে বিধানসভার পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয় তৃণমূল। বিজেপি ওই পদে বালুরঘাটের বিধায়ক অর্থনীতিবিদ অশোক লাহিড়ির নাম জমা দিলেও মুকুলকেই পিএসি’র চেয়ারম্যান হিসেবে নিযুক্ত করেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। এর পরেই পিএসি’র চেয়ারম্যান পদ থেকে মুকুল রায়ের অপসারণের পাশাপাশি দলত্যাগ বিরোধী আইনে তাঁর বিধায়ক পদ খারিজের দাবি জানায় বিজেপি। এই নিয়ে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় যতবার শুনানির ব্যবস্থা করেছেন ততবার‌ই মুকুলের আইনজীবী ‌স্পিকারকে জানিয়েছেন, তাঁর মক্কেল বিজেপিতেই আছেন।

তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর মমতা ও অভিষেকের সঙ্গে মুকুল রায়। পেছনে শুভ্রাংশু।

গত ১১ জুন তৃণমূল ভবনে মমতা ও অভিষেকের উপস্থিতিতে ছেলে শুভ্রাংশুকে সঙ্গে নিয়ে মুকুল রায় তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরেও মুকুল কীভাবে বিজেপিতে থাকেন সেই প্রশ্ন বারবার উঠলেও তাতে খুব একটা কান দিচ্ছেন না মুকুল স্বয়ং। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলেই নির্বাচনে বিজেপির বিপুল জয় দেখতে পান মুকুল। দিন কয়েক আগে শান্তিনিকেতনে অনুব্রত মণ্ডলের পাশে দাঁড়িয়ে মুকুল রায় বলেন, ” পুরভোটে বিপুলভাবে বিজয়ী হবে বিজেপি।” এই ঘটনার পর মুকুলপুত্র দাবি করেন, ” বাবা তৃণমূলেই আছেন। সোডিয়াম-পটাশিয়ামের ঘাটতির কারণে বাবার মাথা ঠিক নাই। ” বিরোধীদের প্রশ্ন- যাঁর মাথার ঠিক নেই তাঁকে পিএসি’র চেয়ারম্যানের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়ে রাখা হয়েছে কেন ? মঙ্গলবার বিধানসভায় এসে এক‌ই প্রশ্ন তুললেন শুভেন্দু অধিকারীও। একদা সতীর্থকে সরাসরি পাগল বলেই কটাক্ষ করে বসলেন শুভেন্দু।

Photo Credit – Official FB account of Suvendu Adhikary and Mukul Roy.


Leave a Reply

Your email address will not be published.