দলছুট মুকুলকে ট্রোজান হর্সের সঙ্গে তুলনা তথাগত রায়ের , বিজেপিতে আর‌ও কত ‘ মুকুল ‘ আছে এই নিয়েই চিন্তিত তথাগত


বিজেপিতে মুকুল রায় ছিলেন মমতার এজেন্ট । মুকুলের ছলনা ধরতে পারে নি দলের নেতারা । এমনই ইঙ্গিত প্রাক্তন রাজ্যপালের

নাগরিক ওয়েব ডেস্ক : সপুত্র ফুল বদলের ২৪ ঘন্টা পরেও মুকুলকে নিয়ে কাঁটাছেঁড়া চলছে সামাজিক মাধ্যমে । মুকুল রায়ের পিছু পিছু আর‌ও ক’জন নেতা এবং জনপ্রতিনিধি হেস্টিংস ছেড়ে হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিটের দিকে রওনা দিতে পারে এই নিয়ে বিজেপির ভেতরে-বাইরে চলছে জোর জল্পনা । ট্যুইটে চাঁচাছোলা মন্তব্যের জন্য বিখ্যাত তথাগত রায় । ভোটের আগে থেকেই নিজের দলের লোকদের বাক্যবাণে জর্জরিত করা প্রায় অভ্যাসে পরিণত করে ফেলেছেন প্রাক্তন রাজ্যপাল । শনিবার ট্যুইট করে দলছুট মুকুল রায়কে ট্রোজান হর্সের সঙ্গে তুলনা করলেন তিনি । মুকুল কেন ট্রয়ের ঘোড়া , তাও ব্যাখ্যা করেছেন তথাগতবাবু । গ্রিক পুরাণ ইলিয়াডে ট্রয়ের ঘোড়ার গল্প আছে । কাঠের ঘোড়ার ভেতরে লুকিয়ে ছিল গ্রিসের সৈন্যরা । ট্রয়ের যোদ্ধারা সেই কাঠের ঘোড়া টেনে এনেছিল নিজেদের রাজধানীতে । রাতের অন্ধকারে কাঠের ঘোড়ার পেট থেকে বের হয়ে ট্রয় নগরী ‌ধংস করে দিয়েছিল গ্রিক সৈন্যরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এজেন্ট মুকুল রায়কে চিনতে না পেরে বিজেপির নেতারাই তাঁকে নিজেদের শিবিরে নিয়ে আসেন , এটাই বোঝাতে চাইছেন তথাগত রায়।

বিজেপির ভেতরে তৃণমূল থেকে আসা নেতাদের নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই ক্ষুব্ধ তথাগত রায় । শুক্রবার মুকুলের দলত্যাগের খবর মিডিয়ায় চাউর হ‌ওয়া মাত্র দলত্যাগকে মলত্যাগের সঙ্গে তুলনা করে ট্যুইট করেন বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি । শনিবার নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে তথাগতবাবু লেখেন , ১০ বছর মুখোমুখি লড়াই করেও ট্রয় দখল করতে পারে নি গ্রিসের সৈন্যরা। তখন কাঠের ঘোড়ার ভেতরে সৈন্য পাঠিয়ে ট্রয়ের যোদ্ধাদের বোকা বানিয়ে এক রাতেই কাজ হাসিল করে গ্রিস । মুকুল রায়ের মাধ্যমে ছলনার আশ্রয় নিয়ে মমতা পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির চরম সর্বনাশ করলেন – মুকুল রায়কে ট্রোজান হর্সের সঙ্গে তুলনা করে এটাই বোঝাতে চাইছেন তথাগত রায় ।

বিজেপিতে আরও কয়জন ছ্দ্ম তৃণমূলী আছে, জানতে চান তথাগত রায়।

তথাগত রায় লিখেছেন, মুকুল রায় বিজেপিতে ঢুকে দিল্লির নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ গড়ে তুলে বাংলার নেতাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়ে দলের ভেতরের সমস্ত কথা জেনে নিয়ে মমতার কাছে ফাঁস করে দিয়ে অবশেষে তৃণমূলে ফিরে গেলেন । তথাগতবাবুর প্রশ্ন , দলের যা ক্ষতি করার করে দিয়ে এখন বিজেপিতে ট্রোজান হর্সের পেটের ভেতরে আর‌ও কত গুলো ট্রোজান হর্স রেখে দিয়ে তৃণমূলে সটকে পড়লেন মুকুল রায় ? মুকুলের রেখে যাওয়া এজেন্টরাও একে একে বিজেপি ছাড়তে শুরু করবেন এই আশঙ্কা থেকেই প্রাক্তন রাজ্যপাল এমন মন্তব্য করেছেন বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা । শুধু তথাগত রায়‌ই নয় বাংলার রাজনৈতিক মহল জুড়েই এখন একটাই প্রশ্ন, তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসা আরও কোন কোন রথী-মহারথীর নাম ঘর ওয়াপসির তালিকায় আছে । মুকুল রায়ের গতিবিধি বরাবরই তাঁর কাছে সন্দেহজনক ঠেকেছে, ট্যুইটারে এমন ইঙ্গিত‌ও দিয়েছেন তথাগতবাবু । তিনি লিখেছেন, মুকুল কেন তাঁর সাক্ষাৎ এড়িয়ে যান ভাবতাম । এখন সেটা স্পষ্ট ।

Picture Credits – Official twitter Tathagata Roy.


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *