হরিয়ানায় তৃণমূলের ঘরে আপের থাবা, জোড়াফুল ছেড়ে ঝাঁটা ধরলেন অশোক তানোয়ার - nagariknewz.com

হরিয়ানায় তৃণমূলের ঘরে আপের থাবা, জোড়াফুল ছেড়ে ঝাঁটা ধরলেন অশোক তানোয়ার


অশোক তানোয়ার জোড়াফুল ছেড়ে ঝাঁটা হাতে তুলে নিতেই হরিয়ানায় তৃণমূলের ঝাঁপ পড়ল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

ডেস্ক রিপোর্ট :আবার‌ও ধাক্কা খেল বাংলার বাইরে তৃণমূলের প্রভাব বৃদ্ধির পরিকল্পনা। হরিয়ানায় তৃণমূলের ঘর ভাঙলো কেজরিওয়ালের আপ। সোমবার জোড়াফুল শিবির ছেড়ে আম আদমি পার্টিতে যোগ দিলেন হরিয়ানার তৃণমূল নেতা অশোক তানোয়ার। গত নভেম্বরে দিল্লিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন অশোক। কিন্তু মাত্র পাঁচ মাসেই মোহভঙ্গ। এদিন অরবিন্দ কেজরিওয়ালের হাত ধরে আপে যোগদানের পর নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে অশোক তানোয়ার লিখেছেন- “মানুষের সেবাই আমার কাছে পবিত্র অঙ্গীকার। মানুষের সেবায় আর‌ও এক ধাপ এগোলাম আমি। যেই দল সৎ রাজনীতি এবং শক্তিশালী শাসনের পক্ষে সেই আম আদমি পার্টির কাছে নিজেকে দায়বদ্ধ করতে পেরে আমি গর্বিত। আমাকে সুযোগ দেওয়ার জন্য অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে ধন্যবাদ।”

আপে যোগ দেওয়ার পর অশোক তানোয়ারের ট্যুইট।

অশোক তানোয়ার হরিয়ানা কংগ্রেসের বেশ পরিচিত মুখ ছিলেন।হরিয়ানার রাজনীতিতে তাঁর কিছু জনভিত্তিও আছে। এহেন তরুণনেতাকে কংগ্রেস থেকে ভাঙিয়ে এনে তৃণমূলে ঢুকিয়ে মমতা-অভিষেকের কাছে বেশ ক্রেডিট নিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। অশোক তানোয়ারের হাত ধরে দিল্লির পাশের রাজ্য হরিয়ানায় একটু একটু করে জোড়াফুল ফুটবে বলে আশা করেছিলেন মমতাও। গোয়ার ভোটে দলের প্রচারে অশোককে বড় দায়িত্ব দিয়েছিলেন অভিষেক। উত্তর-পূর্বাঞ্চলে দলের সংগঠনে বিস্তারেও অশোক তানোয়ারকে কাজে লাগায় তৃণমূল।

উপরে- গত ২৩ নভেম্বর মমতার কাছ থেকে উত্তরীয় গ্রহণ করে তৃণমূলে যোগ দিচ্ছেন অশোক। নিচে- সোমবার কেজরিওয়ালের কাছ থেকে উত্তরীয় নিয়ে আপে যোগ দিচ্ছেন অশোক।

কিন্তু গোয়ায় তৃণমূলের হাল দেখার পর থেকেই মনমরা হয়ে পড়েন অশোক। অন্য দিকে পাঞ্জাবের ভোটে আপের নজরকাড়া বিজয় অশোকের চোখ খুলে দেয়। দিল্লির পর পাঞ্জাবেও আপের সরকার। মাঝে হরিয়ানা। পাঞ্জাবের পরেই কেজরিওয়াল যে হরিয়ানা‌ দখলে ঝাঁপাবেন তা জানা কথাই। এই পরিস্থিতিতে সময় থাকতে বাংলা কেন্দ্রিক তৃণমূল ছেড়ে দিল্লি কেন্দ্রিক আপের ছাতার তলায় আশ্রয় নেওয়াই যে বুদ্ধির কাজ তা বুঝতে দেরি হয় নি এই হরিয়ানভি নেতার।

অশোক তানোয়ার জোড়াফুল ছেড়ে ঝাঁটা হাতে তুলে নিতেই হরিয়ানায় তৃণমূলের ঝাঁপ পড়ল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকেই মনে করেন জাতীয় স্তরে দলের শক্তিবৃদ্ধিতে মমতাকে অনেকটাই পেছনে ফেলে দিয়েছেন কেজরিওয়াল। ত্রিপুরায় দলের একমাত্র কাউন্সিলর দু’দিন আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। গোয়া থেকে শূন্য হাতে ফিরতে হয়েছে অভিষেককে। এবার হরিয়ানায় দলের নেতা সটান আম আদমি পার্টিতে। সর্বভারতীয় স্তরে তৃণমূলের সময়টা যে মোটেই ভাল যাচ্ছে না তা বলাই বাহুল্য।

মোদীর বিকল্প মুখ হয়ে উঠতে এক সময় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর উপর খুব ভরসা করতে শুরু করেছিলেন মমতা।‌ এখন সেই কেজরিওয়ালের হাতেই দলের লোক খোয়াচ্ছে তৃণমূল। অশোক তানোয়ার দল ছাড়ার পর থেকেই হরিয়ানায় তৃণমূলের পর্যবেক্ষকের দায়িত্বে থাকা সুখেন্দু শেখর রায়ের মুখে কথা বন্ধ।

Photo Credit- Twitter.


Leave a Reply

Your email address will not be published.