লাফিয়ে বাড়ছে কোভিড সংক্রমণ,সোমবার থেকে ফের বিধিনিষেধ জারি করল রাজ্য


কলকাতা : করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের দাপটে দেশে ফের লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। রাজ্যে একদিনে সংক্রমিত ৬ হাজার ১৫৩ জন। শনিবার সংখ্যাটা ছিল ৪ হাজার ৫১২। ২৪ ঘন্টায় পজিটিভ কেস বেড়েছে ১৬৪১টি। গত সোমবার গোটা রাজ্যে সংক্রমিত ছিল মাত্র ৪৩৯ জন। ছয়দিনের মাথায় সংক্রমণ হার বেড়েছে ১৫ শতাংশের‌ও উপরে। রবিবার শুধু কলকাতাতেই পজিটিভ ৩ হাজার ১৯৪ জন। এই পরিস্থিতিতে কোভিড বিধিনিষেধ ফিরিয়ে আনল রাজ্য সরকার। সোমবার থেকেই কোভিড বিধি বলবৎ হচ্ছে রাজ্য জুড়ে। রবিবার বিকেলে নবান্নে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে বিধিনিষেধ জারির কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। আপাতত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বিধিনিষেধ জারি থাকবে বলে মুখ্যসচিব জানিয়েছেন।

৩ জানুয়ারি থেকে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত রাজ্যে বিধিনিষেধ বলবৎ করার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

যে সমস্ত বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার –

  • আগামীকাল থেকে বন্ধ থাকবে সমস্ত স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়। এই সমস্ত প্রতিষ্ঠানে প্রশাসনিক কার্যক্রম চালু থাকবে ৫০ শতাংশ কর্মচারীর উপস্থিতিতে।
  • সরকারি ও বেসরকারি অফিসে সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ কর্মী উপস্থিত থাকতে পারবেন। বাকিরা বাড়ি থেকে কাজ করবেন যথাসম্ভব।
  • শহরের সমস্ত সুইমিং পুল, জিম, স্পা, বিউটি পার্লার, সেলুন, ওয়েলনেস সেন্টার এবং টুরিস্ট স্পট বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে পার্ক ও চিড়িয়াখানাও।
  • সমাবেশ বা কনফারেনসের ক্ষেত্রে ২০০ জন অথবা সমাবেশ স্থানের ধারণক্ষমতার ৫০ শতাংশ মানুষ উপস্থিত থাকতে পারেন। দুটির মধ্যে ক্ষুদ্রতর সংখ্যাটি বেছে নিতে হবে।
  • শপিং মল, মার্কেট কমপ্লেক্স, বার, রেস্তরাঁ, সিনেমা হল, ও থিয়েটার খোলা থাকবে রাত দশটা পর্যন্ত। কোনও ক্ষেত্রেই ধারণক্ষমতার ৫০ শতাংশের বেশি মানুষ এই সব জায়গায় প্রবেশ করতে পারবেন না।
  • ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক, বা সামাজিক জমায়েতে সর্বোচ্চ ৫০ জন উপস্থিত থাকতে পারেন। শেষকৃত্যে উপস্থিত থাকতে পারবেন সর্বোচ্চ ২০ জন।
  • লোকাল ট্রেন চলবে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত, ৫০ শতাংশ যাত্রী সমেত। মেট্রো রেলের সময়সূচী অপরিবর্তিত থাকবে, তবে যাত্রী সংখ্যা কমিয়ে ৫০ শতাংশ করা হবে।
  • রাত্রি ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত আপতকালীন প্রয়োজন ছাড়া মানুষ ও যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। এই সময়ের মধ্যে কোনোরকম সমাবেশের আয়োজন করা যাবে না।
  • দুয়ারে সরকার কর্মসূচী স্থগিত থাকবে ১ ফেব্রুয়ারি ২০২২ পর্যন্ত।
  • বিধিনিষেধ মেনে খাবারের হোম ডেলিভারির অনুমোদন করা হবে।
  • উপসর্গবিহীন কোভিড রোগীর ক্ষেত্রে বাড়িতেই চিকিৎসা এবং তার পরবর্তী পদক্ষেপের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
  • সব ক্ষেত্রেই কোভিড বিধি এবং সামাজিক দূরত্ব বিধি কঠোরভাবে পালন করতে হবে, অন্যথা প্রসাশনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সূত্র-কলকাতা পুলিশ।


Leave a Reply

Your email address will not be published.