দুয়ারে রেশন প্রকল্পের সূচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী, প্রকল্প সচল রাখতে ৪২ হাজার কর্মী নিয়োগের ঘোষণা


মিলবে দুয়ারে রেশন ।‌ হবে কর্মসংস্থান‌ও । নেতাজি ইনডোরে দুয়ারে রেশন প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন । কর্মীদের বেতনের অর্ধেক দেবে রাজ্য সরকার।

নিউজ ডেস্ক : মঙ্গলবার দুয়ারে রেশন প্রকল্পের উদ্বোধন করতে গিয়ে রাজ্যে নতুন ৪২ হাজার কর্মসংস্থানের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সাড়া জাগানো প্রকল্প গুলির মধ্যে একটি দুয়ারে রেশন । বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ইস্তেহারেও এই প্রকল্প চালু করার প্রতিশ্রুতি ছিল । এদিন কলকাতার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে দুয়ারে রেশন প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের একুশ হাজার রেশন ডিলার বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেওয়ার জন্য দু’জন করে কর্মী নিয়োগ করতে পারবেন বলে অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে জানান। এঁদের অর্ধেক বেতন দেবে সরকার। বাকিটা দিতে হবে ডিলারকেই । এই কর্মীদের মাসে ১০ হাজার টাকা করে বেতন মিলবে । বেতন বাবদ প্রতি মাসে রাজ্য সরকারের ঘর থেকে অতিরিক্ত খরচ হবে ১৬০ কোটি টাকা।

নেতাজি ইনডোরে দুয়ারে সরকার প্রকল্পের উদ্বোধন : ধানের ছড়া হাতে মুখ্যমন্ত্রী।

ঘরে ঘরে রেশন পৌঁছে দেওয়া যথেষ্টই জটিল কাজ । এ নিয়ে রেশন ডিলারদের মধ্যে ক্ষোভ আছে । ডিলারদের ক্ষোভ প্রশমনে মঙ্গলবার বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার একটি রেশন দোকানে দুয়ারে রেশন বিতরণের জন্য দু’জন করে কর্মী নিয়োগ। এর ফলে রাজ্য বিয়াল্লিশ হাজার নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। পাশাপাশি রেশনের ডিলারশিপ নেওয়ার খরচ এক ধাক্কায় দুই লক্ষ টাকা থেকে কমিয়ে পঞ্চাশ হাজার টাকা করে দিল সরকার। বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দিতে গাড়ি প্রয়োজন ডিলারদের। নিজেদের গাড়িতে রেশন পৌঁছে দিলে ডিলারদের এক লক্ষ টাকা করে সরকার অনুদান দেবে বলে এদিন ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন গাড়ি কিনলেও এক‌ই টাকা সরকার ভর্তুকি দেবে। ৫০০ মিটার অন্তর দুয়ারে রেশনের গাড়ি দাঁড়াবে। কুইন্টাল প্রতি রেশন ডিলারদের কমিশন‌ও অনেকটা বাড়িয়ে দিল সরকার । দুয়ারে রেশন প্রকল্পকে নির্বিঘ্ন করতেই ডিলারদের ক্ষোভ দূর করাটা জরুরি । এই লক্ষ্যেই মঙ্গলবার নেতাজি ইনডোরের অনুষ্ঠানে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের একুশ হাজার রেশন ডিলারকে একাধিক ছাড় দিলেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। মুখ্যমন্ত্রী বলেন , ” দুয়ারে রেশন একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এই প্রকল্পের ফলে শুধু জনগণ ঘরে বসেই রেশন পাবে না নতুন কর্মসংস্থান‌ও তৈরি হবে । নতুন গাড়িও প্রচুর বিক্রি হবে । সবমিলিয়ে রাজ্যের অর্থনীতি মজবুত হবে । ”

Photo sources – Mamata Banerjee official FB page.


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *