উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে চার কৃষকের হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ বাংলা জুড়ে


অরুণ কুমার: উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরে কৃষক হত্যার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাল জয় কিষাণ আন্দোলন। বুধবার কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে লখিমপুরের ঘটনাকে ধিক্কার জানিয়ে পথে নামতে দেখা গেছে কৃষকদের । কৃষক হত্যার দায়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্রকে বরখাস্ত ও তাঁর অভিযুক্ত ছেলে আশিস ও তার সঙ্গীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে জয় কিষাণ আন্দোলন। এদিন উত্তরপ্রদেশের ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন রাজ্যের কৃষক সংগঠন গুলির নেতৃবৃন্দ ।

জয় কিষাণ আন্দোলনের সর্ব ভারতীয় সভাপতি অভীক সাহা সহ অন্যান্যরা জানিয়েছেন, ” উত্তরপ্রদেশের পুলিশ অযোগ্য ও ব্যর্থ । সুপ্রিম কোর্টের কর্মরত বিচারপতির তত্ত্বাবধানে বিশেষ তদন্ত দল গঠন করে নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের উপযুক্ত সাজা দিতে হবে। সেই সঙ্গে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী কৃষকদের লাঠিপেটা করতে প্ররোচনা দিচ্ছেন , অবিলম্বে তাঁকেও‌ বরখাস্ত করতে হবে। ‘ এদিকে উত্তরপ্রদেশের লখিমপুরের খেরিতে গাড়ি চাপা দিয়ে চার নিরস্ত্র কৃষককে হত্যা করা হয়েছে – এই অভিযোগে সংযুক্ত কিষান মোর্চার ডাকে বুধবার দুপুরে কলকাতার মৌলালী মোড়ে এক বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজিত হয় । এতে জয় কিষাণ আন্দোলন ও মহিলা স্বরাজ সংগঠন অংশগ্রহণ‌ও করে। এছাড়া সুন্দরবনের বিভিন্ন ব্লক , উত্তর দিনাজপুরে ও হুগলী জেলার বিভিন্ন স্থানেও লখিমপুরের ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখান কৃষক সংগঠনের সদস্যরা।

জয় কিষান আন্দোলনের সর্বভারতীয় সভাপতি অভীক সাহার অভিযোগ , ” ন্যায্য দাবির জন্য শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক কৃষক আন্দোলনের ওপর কেন্দ্র এবং বিভিন্ন রাজ্যে বিজেপি পরিচালিত সরকারগুলির আক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। অপবাদ, বিচ্ছিনতাবাদ, বিভেদকামিতা সহ বিজেপি’র সব রকমের কৌশল ও অপচেষ্টাকে রুখে দিয়ে অদম্য মনোবলে কৃষকরা প্রায় দশমাস ধরে একটি ঐতিহাসিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন বলে মনে করেন অভীকবাবু । দেশের ঐক্যবদ্ধ কৃষকের অনমনীয় জেদ এবং ধৈর্যের কাছে হার মেনে বিজেপি এখন খুনের খেলায় মেতেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি । অভীক সাহা বলেন, “ভয় দেখিয়ে, গুন্ডা দিয়ে আন্দোলন ভাঙ্গতে চাইছে বিজেপি সরকার। তারই ফলশ্রুতি উত্তর প্রদেশের নৃশংস ঘটনা। ” ভয় দেখিয়ে , নিরস্ত্র আন্দোলনকারীদের খুন করে কৃষক আন্দোলন দমানো যাবে না বলে দাবি করেছেন তিনি।

ছবি- অরুণকুমার


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *