ঘরের দরজা ভেঙে বিজেপি নেতা সজল ঘোষকে গ্রেফতার করল পুলিশ , তীব্র নিন্দা দিলীপ ঘোষের


কলকাতা কর্পোরেশনের প্রাক্তন মেয়র পারিষদ প্রদীপ ঘোষের ছেলের গ্রেফতার ঘিরে রুদ্ধশ্বাস নাটক ! গ্রেফতারের আগে ফেসবুক লাইভে সজল ক্ষোভ উগড়ে দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি । বাংলায় বিজেপি করলে দরজা ভেঙে গ্রেফতার করে পুলিশ – কটাক্ষ দিলীপের

কলকাতা : শুক্রবার দুপুরে ঘরের দরজা ভেঙে মধ্য কলকাতার বিজেপি নেতা সজল ঘোষকে গ্রেফতার করল মুচিপাড়া থানার পুলিশ । সজল প্রদীপ ঘোষের ছেলে । কলকাতার পুর রাজনীতিতে প্রদীপ ঘোষ পুরোনো মুখ । কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে গিয়ে পরে বিজেপিতে নাম লেখান প্রদীপবাবু । সজল ঘোষ‌ও তৃণমূল করতেন । ভোটের মুখে বিজেপিতে যোগ দেন বাবা-ছেলে দুজন‌ই । সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের বিখ্যাত দুর্গাপুজোর প্রধান উদ্যোক্তা‌ও প্রদীপ ঘোষ । সজলকে এইভাবে গ্রেফতারির তীব্র নিন্দা করেছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ । দিলীপবাবু বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, ‘ ঘরের দরজা ভেঙে পুলিশ তুলে নিয়ে যাচ্ছে ! সে ( সজল ঘোষ ) কি ক্রিমিনাল নাকি ?’দিলীপ ঘোষের অভিযোগ , ‘ ত্রিপুরায় গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে তৃণমূলের কয়েকজন নেতা গ্রেফতার হয়েছিলেন । পশ্চিমবঙ্গে সজলকে ঘরের দরজা ভেঙে গ্রেফতার করে তৃণমূল তার বদলা নিল । ‘ ধৃত বিজেপির নেতার পাশে বিজেপি থাকবে বলে আশ্বাস দেন দিলীপ বাবু। দল সজলকে আইনিভাবে সাহায্য করবে বলেও জানান তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে দিলীপ ঘোষ ।

বৃহস্পতিবার রাতে মুচিপাড়া এলাকায় বিশাল সিং নামে এক বিজেপি কর্মীর দোকানে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে । অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে । পাশের একটি ক্লাবেও হামলা চালানো হয় । ঘটনার পরেই মুচিপাড়া থানায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখান বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা । বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন সজল ঘোষ । খবর পেয়ে থানায় এসে পাল্টা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তৃণমূলের লোকেরাও । দুই দলের বাদানুবাদে থানা চত্বর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে । শুক্রবার সকালে ফের আরেকদফা সংঘর্ষ বাঁধে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে । গোলমালের সময় বিজেপির ছেলেরা এলাকার এক যুব তৃণমূল নেতার স্ত্রীর শ্লীলতাহানি ঘটায় বলে অভিযোগ । এতে সজলের‌ও নাম জড়িয়ে দেয় তৃণমূল । থানায় পাল্টাপাল্টি দুই পক্ষ‌ই অভিযোগ করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে । যদিও পুলিশ সক্রিয় হয়ে ওঠে বিজেপি নেতাকে গ্রেফতার করতে ।

গ্রেফতারের আগে ফেসবুক লাইভে সজল ঘোষ।

তৃণমূলের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়া মাত্রই প্রাক্তন মেয়র পারিষদ প্রদীপ ঘোষের বাড়িতে হানা দেয় মুচিপাড়া থানার পুলিশ । পুলিশ বাড়ি ঘেরাও করতেই ফেসবুকে লাইভ শুরু করে দেন সজল ঘোষ ।তৃণমূলের তোলা যাবতীয় অভিযোগ মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেন সজল । তৃণমূলের লোকেরা ক্লাবে চড়াও হয়ে জাতীয় পতাকার অবমাননা থেকে নেতাজির ফটো ভাঙ্গা – যাবতীয় দুষ্কর্ম করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি । পুলিশ গ্রেফতার করতে চাইলে বাড়ি ভেঙে তাঁকে নিয়ে যেতে হবে বলে জানিয়ে দেন সজল ঘোষ ।পুলিশ দরজা খুলতে বললেও দরজা খুলতে অস্বীকার করেন সজল । তখন বাবা প্রদীপ ঘোষ সহ সজলের পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা‌ও বাড়িতে উপস্থিত ছিলেন। রীতিমতো নাটক পরিস্থিতিতে পাড়ার লোকজন, পরিবারের মানুষ এবং সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরার সামনেই ঘরের দরজা লাথি মেরে ভেঙে ভেতরে ঢুকে সজল ঘোষকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ ।

Feature photo is collected .


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *