আগস্টে আর লোকাল ট্রেন চলছে না রাজ্যে , নবান্নে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর তবে সময় কমল নৈশ কারফিউর


কলকাতা : রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালুর কোনও সম্ভাবনা নেই । ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বাংলায় লোকাল ট্রেন বন্ধ‌ই থাকবে বলে বৃহস্পতিবার নবান্নে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকলেও রাজ্যে জনজীবন প্রায় স্বাভাবিক । স্কুল কলেজ বন্ধ থাকলেও সরকারি বেসরকারি সব দফতর খোলা । কয়েকটি স্পেশাল স্টাফ ট্রেন চালাচ্ছে রেল। সেই সব ট্রেনে তীব্র ভিড় । লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় মানুষের মধ্যে ক্ষোভ তীব্র । লোকাল ট্রেন চালুর দাবিতে কলকাতার আশেপাশে রেল অবরোধ, বিক্ষোভ‌ও হয়ে গেছে বেশ কয়েকবার। লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় বাসে গাদাগাদি ভিড় হচ্ছে বলে অনেকের অভিযোগ । কিন্তু কোভিডের তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা মাথায় রেখে আর‌ও কিছুটা সময় দেখতে চান মুখ্যমন্ত্রী । মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণার পর আগস্টে লোকাল ট্রেন চালুর আর কোনও সম্ভাবনা র‌ইল না । মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ জানি সাধারণ মানুষের কষ্ট হচ্ছে । সেই জন্য মেট্রো , বাস , অটো , টটো সব চালু করে দেওয়া হয়েছে। আর‌ও কয়েকটা দিন কষ্ট করতে হবে। ‘

নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বাংলায় করোনা সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টিকা নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগে অনড় মমতা। তিনি বলেন টিকা পাচ্ছি না । তারপরেও সাধ্য মতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি । রাজ্যের শহরাঞ্চল গুলিতে আঠারোর উপরে জনসংখ্যার ৭৫‌ শতাংশকে অন্তত একটি ডোজ টিকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি । গ্রামের দিকে টিকাকরণের কাজ আশানুরূপ এগোয় নি বলে মেনে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী । এর জন্য ভ্যাকসিনের অপ্রতুলতাকেই দায়ী করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।‌‌ দুই চব্বিশ পরগনা সহ কলকাতার পার্শ্ববর্তী এলাকার গ্রাম গুলিতে কমপক্ষে পঞ্চাশ শতাংশ ভ্যাকসিনেশন হয়ে গেলেই তিনি লোকাল ট্রেন চালাতে ভরসা পান বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী । নাইট কার্ফু সময়সীমা হ্রাস করেছে সরকার । এখন রাত ১১টা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত সবকিছু বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

লোকাল ট্রেন চালু ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবি দিন দিন জোরালো হয়ে উঠলেও রাজ্য সরকার যে আপাতত তাতে কান দিতে নারাজ‌ বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণাই তার প্রমাণ । যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরাও । কয়েকটা রাজ্যে বারো ক্লাশ পর্যন্ত পঠনপাঠন শুরু হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই । কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ সেই রাস্তায় হাঁটছে না । বরং পুজোর পরে একদিন অন্তর স্কুল খোলার কথা চিন্তা করা যেতে পারে বলে আগেই জানিয়েছেন মমতা ।

Feature image ( credit to AFP ) is symbolic .


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *