স্মারকলিপি প্রদান ঘিরে তৃণমূলের ‌দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ , আক্রান্ত সাংবাদিকরাও


হাইলাইটস –
  • জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জ ব্লকের সুখানি জিপির ঘটনা ।
  • রাজগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের সঙ্গে জেলা তৃণমূল এসসি-এসটি সেলের সভাপতি কৃষ্ণ দাসের দ্বন্দ্ব অনেক দিনের।
  • তৃণমূল পরিচালিত সুখানি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ কৃষ্ণ দাসপন্থীদের ।
  • কৃষ্ণ দাস পন্থীরা গ্রাম পঞ্চয়েত দফতরে স্মারকলিপি দিতে গেলে খগেশ্বর রায়ের লোকদের হাতে আক্রান্ত হন বলে অভিযোগ।
  • সাংবাদিকরাও আক্রান্ত হয়েছেন। অভিযোগের তির খগেশ্বর গোষ্ঠীর দিকে ।

রাজগঞ্জ : তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মারপিট । খবর করতে গিয়ে আক্রান্ত সংবাদ মাধ্যমের কর্মীরা । শুক্রবার এই ঘটনা ঘটল জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জ ব্লকের সুখানি গ্রাম পঞ্চায়েত দফতরে । তৃণমূল পরিচালিত সুখানি গ্রাম পঞ্চায়েতে একশ দিনের কাজ সহ বিভিন্ন প্রকল্পে দুর্নীতি হচ্ছে – এই অভিযোগে দুপুরে স্মারকলিপি দিতে আসেন‌ কৃষ্ণ দাস পন্থী রাজগঞ্জ ব্লক তৃণমূল এসসি-এসটি সেলের সদস্যরা । জেলা তৃণমূল এসসি-এসটি সেলের সভাপতি , বারোপেটিয়া-নতুনবস গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান এবং জলপাইগুড়ি সদর পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য কৃষ্ণ দাসের সঙ্গে রাজগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের বিবাদ জেলা তৃণমূলের সংসারে একটি পুরোনো সমস্যা । অনেক চেষ্টার পরেও দুই নেতার দ্বন্দ্ব মেটাতে ব্যর্থ তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব । এদিন কৃষ্ণ দাসের অনুগামীরা দলের পতাকা সহ মিছিল করে পঞ্চায়েত দফতরে প্রবেশ করা মাত্রই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ।

কৃষ্ণ দাসের অনুগামীদের দফতরে ঢুকতে বাধা দেন বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের অনুগামীরা ।‌ কৃষ্ণ দাসের লোকেরা জোর করে ভেতরে ঢুকতে চাইলে দুই পক্ষে হাতাহাতি বেঁধে যায় । সুখানি গ্রাম পঞ্চায়েত দফতর চত্বরে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মারপিটের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন সাংবাদিকরা । বিধায়কের লোকেরা সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের‌ গায়েও হাত তোলে বলে অভিযোগ । হামলায় সাতজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন ।

ভিডিও

তৃণমূল এসসি-এসটি সেলের রাজগঞ্জ ব্লক কমিটির কার্যকরী সভাপতি পূর্ণচন্দ্র রায় অভিযোগ করেন, একশ দিনের কাজ , আবাস যোজনার ঘর বন্টন , রাস্তা নির্মাণ – প্রত্যেকটা প্রকল্প নিয়ে দুর্নীতিতে ডুবে আছেন প্রধান । তৃণমূলের সদস্যদের ডেপুটেশন গ্রহণ না করে উল্টো দফতরের কলাপসিবল গেটে তালা মেরে দেন তৃণমূলের‌ই প্রধান । জোর করে ঢুকতে চাইলে কৃষ্ণ দাস পন্থীদের মারধর করতে শুরু করেন খগেশ্বর রায়ের লোকেরা। পূর্ণবাবু সাংবাদিকদের বলেন , ‘ এইভাবে তারা মেরে ঘরে বসে আছেন আমাদের দলের‌ই প্রধান । কিন্তু বেশি দিন থাকতে দেবো না । ‘ তাদের উপর চড়াও হ‌ওয়ার পাশাপাশি বিধায়কের লোকেরা সাংবাদিকদের উপরেও হামলা করেন বলে অভিযোগ করেন কৃষ্ণ দাস পন্থীদের এই নেতা । সাংবাদিকদের উপর হামলার‌ নিন্দা করেছেন তিনি ।

খগেশ্বর অনুগামীদের পাল্টা অভিযোগ , যারা স্মারকলিপি দিতে এসেছিলেন তারা তৃণমূলের কেউ নন । ডেপুটেশন দেওয়ার কথা আগাম জানানো হয় নি বলেও দাবি করেন খগেশ্বর রায়ের অনুগামী তথা জেলা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সহসভাপতি শেখ ওমর ফারুক । যদিও এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন কৃষ্ণ দাসের অনুগামীরা । ডেপুটেশন দেওয়ার কথা বৃহস্পতিবার হোয়াটসঅ্যাপ মারফত প্রধানকে জানানো হয়েছিল বলে দাবি করেন রাজগঞ্জ ব্লক এসসি-এসটি সেলের কার্যকরী সভাপতি পূর্ণচন্দ্র রায় । সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের‌ উপর হামলার ঘটনার নিন্দা করেছে জলপাইগুড়ি জেলা প্রেস ক্লাব ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *