আরব বিশ্বে এখন বন্ধুর অভাব নেই ইজরায়েলের , প্যালেস্টানিয়রাই বরং নিঃসঙ্গ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফের আন্তর্জাতিক রাজনীতির শিরোনামে ইজরায়েল-প্যালেস্টাইন সংঘর্ষ ।‌ জেরুজালেমের আল‌আকসা মসজিদকে ঘিরে পুলিশ ও প্যালেস্টানিয় যুবকদের মধ্যে গন্ডগোলের বদলা নিতে গাজা স্ট্রিপ থেকে হামাস গেরিলারা ইজরায়েলের রাজধানী তেলআভিভ লক্ষ্য করে রকেট ছোঁড়ে । জবাবে গাজায় হামাসের পরিকাঠামো বোমা মেরে মেরে ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে ইজ্রায়েলের বিমান বাহিনী । ২০৪ সালের পর ফের গাজা ভূখণ্ড থেকে রকেট হামলার ঘটনা ঘটল ইজরায়েলে । প্যালেস্টানিয় জনগোষ্ঠীর প্রধান রাজনৈতিক সংগঠন পিএল‌ও বা প্যালেস্টাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশন ইজরায়েল সরকারের সঙ্গে মোটের ওপর একটি রফা করে দেশটির পশ্চিম তীরে নিজেদের মতো করে পৃথক প্রশাসন চালিয়েই সন্তুষ্ট । কিন্তু সমস্যা গাজা স্ট্রিপের হামাসকে নিয়ে । হামাস রীতিমতো সন্ত্রাসবাদী সংগঠন যাদের এখনও ইজরায়েলকে পৃথিবীর মানচিত্র থেকে মুছে দেওয়ার খোয়াইশ কাটে নি । গাজা ভূখন্ডে প্যালেস্টানিয়দের প্রশাসন চলে উগ্রবাদী হামাসের নেতৃত্বে । ইজরায়েল আর প্যালেস্টাইনের মধ্যে অশান্তি জিইয়ে রাখার জন্য হামাসকেই দায়ী করে থাকে ইজয়ায়েল সরকার । 

এমনিতেই প্যালেস্টানিয়দের সামনে ইজরায়েলের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ বোঝাপড়া করে নেওয়া ছাড়া খুব বেশি পথ খোলা নেই । মুশকিল হল পিএল‌ও নেতৃত্ব এই বাস্তবতা বুঝতে পারলেও হামাস অনুধাবন করতে নারাজ । ইজরায়েল – প্যালেস্টাইন সংঘর্ষের আবহে আরব বিশ্বে যে আরব অস্মিতার সূচনা হয়েছিল গত শতাব্দীর ষাটের দশকে, বহু দিন হল তা অস্তমিত । এখন খোদ আরব বিশ্বেই প্যালেস্টানিয়রা বান্ধবহীন । গত এক দশকে মধ্যপাচ্যের রাজনীতি সম্পূর্ণ পাল্টে গেছে । সিরিয়া ব্যতীত বাকি আরব রাষ্ট্র গুলি ভয়ে অথবা ভক্তিতে অথবা নিজের স্বার্থে ইজরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক প্রায় স্বাভাবিক করে ফেলেছে । জর্ডনের সঙ্গে ইজরায়েলের মিত্রতা বহু আগেই স্থাপিত হয়েছে । গতবছর ঐতিহাসিক এক চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে ইজরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ( UAE ) । যে মিশর দু’দুবার আরব-ইজরায়েল যুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিল , পরাজয় থেকে শিক্ষা নিয়ে ৯৭৯ সালেই ইজরায়েলের সঙ্গে শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করে ফেলে তারা । মিশরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদেল ফতাহ আল- সিসি তো প্যালেস্টাইনের দায় ঘাড় থেকে ঝেড়ে ফেলে দিয়ে ইজরায়েলের সঙ্গে কষে বন্ধুত্বে মেতেছেন । আগে গাজা স্ট্রিপ থেকে সুরঙ্গ পথে মিশরে গিয়ে আশ্রয় নিত হামাসের যোদ্ধারা । ইজরায়েলের সঙ্গে দোস্তির আনন্দে সেইসব সুরঙ্গ বুজিয়ে দিয়ে সীমান্তে কড়া পাহারা বসিয়ে হামাস জঙ্গিদের মিশরে ঢোকার পথ বন্ধ করে দিয়েছে আল-সিসি প্রশাসন । 

তেলআভিভে রকেট হামলার জবাবে গাজায় হামাসের ঠিকানায় বোমা বর্ষণ ইজরায়েলের । 
 

কোন‌ও কালেই প্যালেস্টানিয়দের জন্য সৌদি আরবের বাদশাহদের মাথা ব্যথা ছিল না । ইহুদি নাসারাদের সঙ্গে বাহ্যিকভাবে সৌদি বাদশাহের কোন‌ও সম্পর্ক না থাকলেও তলে তলে খাতির যে খুবই গভীর তা মধ্যপ্রাচ্যের সকলের‌ই জানা । নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে গোপনে ইজরায়েল সরকারের কাছ থেকে নিয়মিত সাহায্য নেয় সৌদি রাজতন্ত্র । বাহারাইন , ওমান , মরক্কো , টিউনিসিয়া – এই চারটি আরব রাষ্ট্র ইজরায়েলের সঙ্গে এখনও আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন না করলেও গোপন বোঝাপড়া করে নিয়েছে । প্যালেস্টাইন সমস্যার সমাধানে এদের আর কোনও গরজ নেই । আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এই চারটি দেশের সঙ্গে তেল‌আভিভের কূটনৈতিক সম্পর্ক তৈরি হলে কেউ বাক হবে না ।  

পিএলও ইজরায়েল সরকারের সঙ্গে বোঝাপড়া করে নিলেও সংঘাতের পথ ছাড়তে নারাজ হামাস ।

মধ্যপাচ্যের যে দেশটি এখনও ইজরায়েলের অস্তিত্ব স্বীকার করে না এবং ইজরায়েল যাকে নিজের নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করে সেই দেশটির নাম ইরান । শিয়া সম্প্রদায়ের ইরান আরব দেশ নয় । সৌদি আরব সহ আরবের সুন্নি মুসলিম প্রধান দেশগুলোর সঙ্গে ইরানের সম্পর্ক ইসলামিক বিপ্লবের পর থেকেই স্পর্শকাতর । সৌদি আরব ও ইরান মনেপ্রাণে পরস্পরের বিনাশ চায় । প্রতিবেশি সিরিয়ার সঙ্গে ইজরায়েলের বিবাদ নিষ্পত্তি হ‌ওয়ার ততদিন পর্যন্ত কোনও সম্ভাবনা নেই যতদিন পর্যন্ত দামাস্কাসে ইরানের মদতপুষ্ট সরকার থাকবে । তবে গৃহযুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়াকে সবসময় চোখে চোখে রাখে ইজরায়েল এবং সময় সময় কড়কানি দিতে ভোলে না । শিয়াপন্থী হিজবুল্লাহ গেরিলারা ইজরায়েল-লেবানন সীমান্ত জুড়ে একটি বড় অংশে বিকল্প সরকার চালায় ইরানের প্রত্যক্ষ মদতে । এখন গাজা স্ট্রিপের হামাস আর লেবাননের হিজবুল্লাহ গেরিলা ব্যতীত আর কারও সঙ্গেই সশস্ত্র সংঘাতের জায়গায় নেই ইজরায়েল ।৯৪৮ সালে স্থাপিত মাত্র ২২ হাজার ৭২ বর্গ কিলোমিটারের এই ক্ষুদ্র জাতিরাষ্ট্র অতুলনীয় সমরশক্তি , বিজ্ঞান-প্রযুক্তি , সফল কূটনীতি ও উন্নত অর্থনীতির জোরে বিশাল আরব দুনিয়াকে নাকে রশি দিয়ে ঘুরিয়েই চলেছে বিংশ শতাব্দীর ষাটের দশক থেকে

Picture Courtesy – Twitter of Israel Govt./Twitter@HanaaWaelNassa1/ sky news


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *