শীতলকুচি কান্ডে মমতাকে বিঁধে মোদী : ‘ দিদি ‘র ছাপ্পা ভোটের মাস্টার প্ল্যান ছাড়া আর কিছুই নয় ঘটনা


এনএনডিসি পলিটিক্যাল ডেস্ক,২ এপ্রিল,২০২ : শীতলকুচিতে সিআইএস‌এফ এর গুলিতে চারজনের মৃত্যুর ঘটনাকে তৃণমূলের ষড়যন্ত্রের বেশি আর কিছু বলতে নারাজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার নদীয়ার কল্যাণী ও উত্তর চব্বিশ পরগনার বারাসতের সভায় দাঁড়িয়ে মোদীর সাফ কথা, এইভাবে ছাপ্পা ভোটের মাস্টার প্ল্যান দিদিকে সফল করতে দেওয়া যাবে না । মোদীর দৃষ্টিতে গত শনিবার চতুর্থ দফা ভোটের সকালে শীতলকুচি বিধানসভার জোড়াপাটকি গ্রামের ২৬ নম্বর বুথের ঘটনা তৃণমূলের ছাপ্পা ভোটের মাস্টার প্ল্যান ছাড়া আর কিছুই নয়। কল্যাণীর সভায় নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘ প্রত্যেক দফা ভোটেই শোচনীয় ভাবে হারতে চলেছেন দেখে দিদির নতুন ষড়যন্ত্র হল তফশিলি জাতির মানুষদের ভোট দিতে বাধা দেওয়া । দলের লোকদের দিয়ে ছাপ্পা দেওয়ানো । ‘ মোদীর অভিযোগ, ‘ খুল্লামখুল্লা বলা হচ্ছে তৃণমূলের একদল লোক কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও করবে । তৃণমূলের আরেক দল লোক ভেতরে ছাপ্পা মারবে । কোচবিহারে যা হয়েছে তা দিদির ছাপ্পা ভোট মাস্টার প্ল্যানের অংশ । ‘

শীতলকুচি কান্ড  দিদির ছাপ্পা ভোটের মাস্টার প্ল্যানের অংশ – কল্যাণীতে  কটাক্ষ  মোদীর ।

২০পঞ্চায়েত ভোটের কলঙ্ক এখনও হাত থেকে ধুয়ে ফেলতে পারে নি তৃণমূল । বারাসতের সভায় কোচবিহারের শীতলকুচি কান্ডের কথা সরাসরি মুখে না আনলেও পঞ্চায়েত ভোটের প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদী বুঝিয়ে দেন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের পঞ্চায়েত ভোটের মডেল কোনও মতেই বরদাস্ত করা হবে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করে মোদী বলেন, পঞ্চায়েত ভোটের সময় দিদির পার্টি যেভাবে গণতন্ত্রকে লুট করেছিল সেই ষড়যন্ত্র তিনি এই ভোটেও করতে চাচ্ছেন । ‘ কিন্তু বিধানসভা ভোটে যে ভোট লুঠের ষড়যন্ত্র সফল হবে না সেই বিষয়ে মমতাকে সতর্ক করে দিয়ে মোদীর হুঁশিয়ারি, ‘ আমি দিদিকে সাফ সাফ বলে দিতে চাই যে দিদি ও দিদি আপনার ষড়যন্ত্র বাংলার জনগণ ব্যর্থ করে দিতে থাকবে । আপনার প্রতিটি ষড়যন্ত্রের জনগণ নিজেদের মতো করেই দিতে থাকবে । ‘

কল্যাণীতে মোদীর সভায় ভিড়ের একাংশ ।

শীতলকুচিতে বুথের সামনে সিআইএস‌এফ এর গুলিতে চারজনের মৃত্যুর পর মোদী-শাহ নরম সুরে কথা বলবেন এমনটাই ভেবেছিলেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের কেউ কেউ । কিন্তু তাদের ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে দিয়ে শীতলকুচি কান্ডে আর‌ও অনমনীয় মনোভাব নিলেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব । বরং শীতলকুচির ঘটনার পর জনগণের মনে পঞ্চায়েত ভোটের তিক্ত স্মৃতি উস্কে দিয়ে তৃণমূলকে ব্যাকফুটে ফেলাই মোদী-শাহের লক্ষ্য বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল ।

ভিডিও –


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *