ভোট চতুর্থ দফা : প্রচারের শেষ পর্বেও মমতার নিশানায় কমিশন আর কেন্দ্রীয় বাহিনী


বলাগড় ,৮ এপ্রিল,২০২১ : অমিত শাহের নির্দেশে কেন্দ্রীয় বাহিনী গ্রামে গ্রামে ভয় দেখাচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বৃহস্পতিবার হুগলীর বলাগড়ে নির্বাচনী সভায় এই‌ অভিযোগ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । প্রতিটি সভা থেকেই নির্বাচন কমিশনের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীকেও নিশানা করছেন মমতা । রাজনৈতিক মহল বলছে , ভোটের দফা বাড়ার সাথে সাথে কমিশন ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রতি তৃণমূল সুপ্রিমোর বিদ্বেষ‌ও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ।‌ চতুর্থ দফা ভোটের আগে প্রচারের শেষ দিনেও নির্বাচন কমিশন ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর সমালোচনায় অনেকটা সময় ব্যয় করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । 

বৃহস্পতিবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রচার শুরু করেন হুগলীর বলাগড় বিধানসভা কেন্দ্র দিয়ে ।‌ এখানে তৃণমূলের প্রার্থী দলিত সাহিত্যিক মনোরঞ্জন ব্যাপারী । মনোরঞ্জন ব্যাপারীকে কয়েক মাস আগে দলিত সাহিত্য অ্যাকাডেমির চেয়ারম্যান পদে বসিয়েছে রাজ্য সরকার । সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন ,’ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন্দ্রীয় বাহিনীর সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছেন যাও গিয়ে গ্রামে গ্রামে ভয় দেখাও । ‘ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জ‌ওয়ানেরা মেয়েদের গায়ে হাত দিচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলেন তৃণমূল সুপ্রিমো । তিনি বলেন , ‘ ভোটের ক্যাম্পেইন শেষ হয়ে যাওয়ার পর গ্রামে গ্রামে গিয়ে মেয়েদের গায়ে হাত দিচ্ছে ‌ । ছেলেদের ভয় দেখাচ্ছে । বিজেপির লোকদের সাথে গিয়ে বলছে বিজেপিকে ভোট দাও । ‘ 

রাজ্যের পুলিশ অথবা কেন্দ্রের বাহিনী : সবার উপরেই বিশ্বাস হারিয়েছেন মমতা !

শুধু কেন্দ্রীয় বাহিনী নয় রাজ্যের‌ পুলিশকেও সন্দেহের চোখে দেখছেন মুখ্যমন্ত্রী । বলাগড়ে তিনি বলেন, ‘ যদি পুলিশ ভয় দেখায় বিজেপিকে ভোট দাও । একটা কথাও শুনবেন না। লাইন করে গিয়ে ভোট দেবেন । ‘ রাজ্যের পুলিশের উদ্দেশ্যে খোদ  পুলিশমন্ত্রীকেই বলতে শোনা যায়‌, ‘ দেখুন আপনারা বাংলার পুলিশ ফোর্স । আপনারা দয়া করে মাথা নত করবেন না । আপনারা শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখবেন । কেউ যাতে গন্ডগোল না করতে পারে , সেটা দেখবেন । মানুষ যাতে ভোট দিতে পারে । যাতে ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার ইলেকশন হয় সেটা দেখবেন । ‘ 

বলাগড়ের সভা থেকেও কেন্দ্রীয় বাহিনীকে প্রতিরোধে মেয়েদের হাতাখুন্তি রেডি রাখতে বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । বাহিনীর জ‌ওয়ানদের গুন্ডা বলে গাল পাড়তেও দ্বিধাবোধ করেন নি মমতা! তিনি বলেন , ‘ আপনারা আইন‌ হাতে নেবেন না । কিন্তু গুন্ডাদের মা-বোনেদের দিয়ে তাড়াবেন । এত বড় সাহস গুন্ডাদের । আমার মা-বোনেদের গায়ে হাত দেয় । দেখি কত বড় ক্ষমতা । ‘ এমনকি প্রদেশ তুলেও জ‌ওয়ানদের কটাক্ষ করতে ছাড়েন নি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী । তাঁর অভিযোগ , ‘ বিহার থেকে নিয়ে আসছে । উত্তরপ্রদেশ থেকে নিয়ে আসছে । দিল্লি থেকে নিয়ে আসছে ।  ভোট হয়ে গেলে পরের দিন পালিয়ে যাবে । কিন্তু আপনার ভোটটা নষ্ট করে দিয়ে চলে যাবে । ‘ 

বলাগড়ের সভায় দলের প্রার্থী মনোরঞ্জন ব্যাপারীর সমর্থনে বলছেন তৃণমূল সুপ্রিমো ।

কমিশন ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লাগাতার অভিযোগের জবাবে কড়া প্রতিক্রিয়া আসছে বিরোধী শিবির থেকে । বিরোধীরা বলছেন‌ , ‘ ভোটে কারচুপি করার সুযোগ না পেয়ে এখন কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে‌ই দলের কর্মী-সমর্থকদের উস্কাতে শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী । ‘ নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করার দায়িত্ব দিয়ে যে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে বুথে বুথে মোতায়েন করছে কমিশন , প্রতিপক্ষ বানিয়ে তাদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক দল গুলো লোকজনকে প্ররোচিত করতে থাকলে যে কোনও মুহুর্তে বড় ধরণের গোলমাল বেঁধে যেতে পারে বলে নাগরিক সমাজের আশঙ্কা ।‌


Photo Courtesy – scroll.in & TMC official Facebook page.


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *