দেশনায়কের ১২৫তম জন্মজয়ন্তীর প্রাক্কালে জলপাইগুড়িতে নেতাজি গবেষক জয়দীপ মুখোপাধ্যায় || নেতাজি অন্তর্ধান রহস্য উন্মোচনের দাবিতে নাগরিক আন্দোলনের ডাক গবেষকের‌


নাগরিক নিউজ প্রতিবেদন : আর দিন কয়েক বাদেই তেইশে জানুয়ারি । নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মজয়ন্তী। বাঙালি জাতি একমাত্র নেতাজিকেই  দেশনায়ক বলে মানে । নিঃসন্দেহে বাঙালির জন্য সবথেকে যন্ত্রণার জায়গা হল   ১২৫ বছর পরেও  প্রিয় দেশনায়কের অন্তিম পরিণতি আমাদের অজানা । নেতাজিজয়ন্তীর প্রাক্কালে জলপাইগুড়িতে এক অনুষ্ঠানে এসে আর‌ও একবার নেতাজি অন্তর্ধান রহস্য উদঘাটনের দাবি জানালেন বিশিষ্ট নেতাজি গবেষক ও দেশের শীর্ষ আদালতের আইনজীবী জয়দীপ মুখোপাধ্যায় । 

জলপাইগুড়িতে নেতাজির প্রাক ১২৫ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিচ্ছেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়







নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সম্প্রতি শহরের নেতাজি সুভাষ ফাউন্ডেশনে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জলপাইগুড়ি বিবেকানন্দ এডুকেশন সোসাইটি এবং ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন  । স্বাগত ভাষণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বিবেকানন্দ এডুকেশন সোসাইটির সহ-সম্পাদক ও ডিজিটাল মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশন , নতুন দিল্লি’র আহ্বায়ক অরুণকুমার । এরপর  নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন নেতাজি গবেষক জয়দীপ মুখোপাধ্যায় , প্রাবন্ধিক উমেশ শর্মা  সহ  অন্যান্য অতিথিরা । অনুষ্ঠানে শহরের কয়েকেজন লেখক , সাহিত্যিক , সাংবাদিক , সমাজকর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মীকে সংবর্ধনাও জানায় আয়োজক সংস্থা ।  দেশাত্মবোধক সঙ্গীত ও আবৃত্তি শেষে নেতাজি সংক্রান্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায় । 

নেতাজি রহস্য উন্মোচনই দেশনায়কের ২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে সব থেকে বড় দাবি : জয়দীপ মুখোপাধ্যায় 

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে শুধু ভারত নয় সমগ্র দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী মুক্তি সংগ্রামের নায়ক বলে বর্ণনা করেন নেতাজি গবেষক জয়দীপ মুখোপাধ্যায় । ভারতের যেই স্বাধীনতা সংগ্রামীকে ব্রিটিশ শক্তি সবথেকে বেশি ভয় পেতো , জন্মের ১২৫ বছর পরেও কেন তাঁর জীবনের অন্তিম পরিণতি সম্পর্কে জাতি অন্ধকারে , এই প্রশ্ন তুলেছেন জয়দীপবাবু । সাম্প্রতিক কালে যে কয়জন গবেষক নেতাজি অন্তর্ধান নিয়ে দেশে-বিদেশে গবেষণা করছেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবী । নেতাজি সংক্রান্ত অনেক ফাইল চাক্ষুষ করেছেন তিনি । ১৯৪৫ এর ১৮ই আগষ্ট জাপানের তাইহোকুতে যে নেতাজির মৃত্যু হয় নি এটা বহু আগেই প্রমাণিত ।  এমনকি স্বাধীনতার পরেও রাশিয়ায় নেতাজির অবস্থানের কথা জানতেন দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জ‌ওহরলাল  নেহেরু সহ ভারতের একাধিক নেতা । এখনও পর্যন্ত দেশে-বিদেশে নেতাজি সংক্রান্ত যে সমস্ত ফাইল উন্মুক্ত হয়েছে তা থেকেই অনেক অজানা তথ্য উঠে আসছে বলে সভায় দাবি করেন জয়দীপবাবু । 

নেতাজি রহস্য উন্মোচন কর

দেশের কোনও সরকার‌ই নেতাজি অন্তর্ধান রহস্যের কিনারা করতে আন্তরিক নয় বলে অনুষ্ঠানে অভিযোগ করেন তিনি । তবে সত্য কোনও দিন চিরকাল ধামাচাপা থাকে না বলে মনে করেন নেতাজি গবেষক জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। নেতাজি সংক্রান্ত যে সব সত্য জোর করে চেপে রাখা হয়েছিল ধীরে ধীরে সেসব পর্দার আড়াল সরিয়ে সামনে আসছে বলে দাবি করেন জয়দীপবাবু । জয়দীপ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে এই মহান দেশপ্রেমিকের জীবনের অন্তিম পরিণতি  সম্পর্কে সত্য জানার অধিকার দেশবাসীর আছে । ‘ নেতাজি রহস্য উন্মোচনের দাবিতে দেশের সমস্ত নেতাজি অনুরাগী  নাগরিক ও  যুবসমাজকে সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে বলে মনে করেন সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবী। একমাত্র গণ আন্দোলনের মাধ্যমেই এই দাবি পূরণ সম্ভব , এমনটাও মনে করেন নেতাজি গবেষক জয়দীপ মুখোপাধ্যায়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *