জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেসের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা || সদর ও নাগরাকাটা তো থাকবেই জেলায় আরও দু’একটি আসন নিয়েও জোটে আলোচনা চান পিনাকী সেনগুপ্ত


প্রদ্যুৎ দাস , জলপাইগুড়ি , ১ জানুয়ারি : বিধানসভা নির্বাচনে বাম-কংগ্রেস জোট একপ্রকার নিশ্চিত বলেই রাজনৈতিক মহলের ধারণা । তবে জোটের আসন সমঝোতা কতটা মসৃণ হবে তা নিয়ে সংশয় আছে অনেকেরই । জলপাইগুড়ি সদর বিধানসভা আসনটি কংগ্রেসের‌ই থাকবে বলে শুক্রবার জানিয়ে দিলেন জেলা কংগ্রেস সভাপতি পিনাকী সেনগুপ্ত । বামফ্রন্টের হিসেব অনুযায়ী সদর বিধানসভা শরিক ফর‌ওয়ার্ড ব্লকের জন্য বরাদ্দ থাকলেও ষোলোর বিধানসভা নির্বাচন থেকে সেই‌ হিসেব উল্টে যায় । জোট ধর্ম মেনে কংগ্রেসের জেতা আসন কংগ্রেসকেই ছেড়ে দেয় বামফ্রন্ট । প্রাথমিকভাবে আপত্তি করলেও পরে মেনে নেয় ফর‌ওয়ার্ড ব্লক । জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেসের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করতে গিয়ে এদিন পিনাকীবাবু জানান, ‘ আমাদের সঙ্গে বামপন্থী দলগুলোর জোট হয়েছে । এটা নতুন করে বলার কিছু নেই। জোট ধর্ম পালন করে আমরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব । ‘ জেলায় আসন সমঝোতার প্রশ্নে জেলা কংগ্রেসের সভাপতি বলেন, ‘ জলপাইগুড়ি সদর কংগ্রেসের জেতা সিট । কংগ্রেসের‌ই থাকবে ।  ষোলোতে  নাগরাকাটা আসনটিও  কংগ্রেসকেই ছেড়ে দিয়েছিল সিপিএম । সদরে বিধানসভা ধরে রাখতে পারলেও  নাগরাকাটা হাতছাড়া হয়েছিল কংগ্রেসের । নাগরাকাটা আসনে এবার‌ও  জোটের হয়ে কংগ্রেস‌ই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বলে শুক্রবার সাংবাদিকদের জানান পিনাকী সেনগুপ্ত । এই দুটো আসন ছাড়া  জলপাইগুড়ি জেলার অন্য কোন‌ও আসনেও  কংগ্রেসের দাবি থাকতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন জেলা কংগ্রেস সভাপতি । নতুন রাজনৈতিক বিন্যাস অনুযায়ী সেই দাবি উঠলে বামফ্রন্টের সঙ্গে খোলামেলা আলোচনার মাধ্যমেই তার নিষ্পত্তি হবে বলে মনে করেন পিনাকীবাবু । 

জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেসের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা  করছেন পিনাকী সেনগুপ্ত

নতুন বছরের প্রথম দিন‌ই জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেসের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করলেন পিনাকী সেনগুপ্ত ‌। গত ১২ অক্টোবর জলপাইগুড়ি জেলা কংগ্রেসের সভাপতির দায়িত্ব পান পিনাকীবাবু । এ নিয়ে দলের অন্দরে অসন্তোষ থাকলেও পিনাকী সেনগুপ্ত নতুন জেলা কমিটির যে তালিকা  পাঠিয়েছিলেন তাতেই শিলমোহর দিয়েছে বিধান ভবন । প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি অনুমোদিত সেই তালিকাই শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করলেন জেলা কংগ্রেস সভাপতি । জেলার  ১৫ টি সাংগঠনিক ব্লকে ১৫ জন ব্লক সভাপতির পাশাপাশি  নতুন পূর্ণাঙ্গ জেলা কমিটিতে ৬৪ জনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে । নব গঠিত জেলা কংগ্রেস কমিটিতে ১৪ জন সহ-সভাপতি , ১৭ জন সাধারণ সম্পাদক এবং ১২ জন সম্পাদক থাকছেন । প্রাক্তন জেলা কংগ্রেস সভাপতি নির্মল ঘোষ দস্তিদার নতুন জেলা কমিটিতে  আমন্ত্রিত সদস্য হিসেবে জায়গা পেয়েছেন ।  দেবপ্রসাদ রায় এবং বিধায়ক সুখবিলাস বর্মাও আমন্ত্রিত সদস্য হিসেবে জেলা কংগ্রেস কমিটিতে থাকছেন । 

আগামী ৮ জানুয়ারি নতুন জেলা কমিটির প্রথম  পূর্ণাঙ্গ সভা বসবে বলে জানিয়েছেন জেলা কংগ্রেস সভাপতি । তিনি বলেন, ‘ জেলা কংগ্রেস এখন থেকে আর শুধু প্রেস বিবৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না। মানুষের প্রয়োজনে মানুষের কাছে যাবে । ‘   ‘ এখানে সেখানে মানুষের দরকারে কংগ্রেস । ‘ এখন থেকে এটাই জেলা কংগ্রেসের নতুন স্লোগান বলে জানালেন পিনাকী সেনগুপ্ত । 


ভিডিওতে দেখুন –





Leave a Reply

Your email address will not be published.