অমিত শাহের সফর বাতিলে মুষড়ে পড়েও শাহি টোটকাতেই ফের তাজা বঙ্গ বিজেপির নেতারা , শাহের উদ্যোগে রাজীব-বৈশালীদের পদ্মশিবিরে যোগদান পর্ব দিল্লিতেই - nagariknewz.com

অমিত শাহের সফর বাতিলে মুষড়ে পড়েও শাহি টোটকাতেই ফের তাজা বঙ্গ বিজেপির নেতারা , শাহের উদ্যোগে রাজীব-বৈশালীদের পদ্মশিবিরে যোগদান পর্ব দিল্লিতেই


নাগরিক পলিটিক্যাল ডেস্ক : জানুয়ারি ফুরোতে বাকি আর মাত্র দু’দিন। ফেব্রুয়ারি থেকে যে পশ্চিমবঙ্গে ভোটের তোড়জোড় পুরোদমে শুরু হয়ে যাবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না । ফেব্রুয়ারির ১৫ তারিখের পর যেকোনও দিন নির্বাচন কমিশন বিধানসভা ভোটের দিনক্ষণ  ঘোষণা করে দিতে পারে বলে আভাস মিলছে । তাই জানুয়ারির শেষে প্রবল শৈত্যপ্রবাহের মধ্যেও পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক উত্তাপ বাড়তির দিকে । শুক্রবার রাতেই দু’দিনের  বঙ্গসফরে আসার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের । কিন্তু রাজধানী দিল্লিতে ইজরায়েল দূতাবাসের সামনে বিস্ফোরণের ঘটনার জেরে একেবারে শেষ মুহুর্তে ‌সফর বাতিল করে দেন অমিত শাহ । শাহি সফর বাতিল হ‌ওয়ায়  প্রাথমিকভাবে রাজ্য বিজেপির নেতৃত্ব মুষড়ে পড়লেও শনিবার  সকালের মধ্যেই বাংলার নেতাদের মনোবল অনেকটাই চাঙ্গা করে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বয়ং । 

শনিবার ঠাকুরনগরে মতুয়াদের সমাবেশে ভাষণ দেওয়ার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর 

রাজ্য  বিজেপির নেতাদের সবথেকে বড় দুশ্চিন্তা ছিল ঠাকুরনগরে অমিত শাহের সভা বাতিলের পর মতুয়াদের শান্ত রাখা । নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন কার্যকরে বিলম্ব হ‌ওয়ায় দীর্ঘদিন দলের ভেতরে নিষ্ক্রিয় ছিলেন বনগাঁর সাংসদ ও সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘের সংঘাধিপতি শান্তনু ঠাকুর। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্বয়ং ঠাকুরনগরে এসে মতুয়াদের সামনে দাঁড়িয়ে নাগরিকত্ব নিয়ে আশ্বাস দেবেন – বিজেপি নেতাদের কাছ থেকে এই  প্রতিশ্রুতি পাওয়ার পরেই গোঁসা ভাঙে শান্তনু ঠাকুরের । এরপরেই ৩০ ডিসেম্বর ঠাকুরনগরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সমাবেশের দিন ঠিক করা হয় । শুক্রবার একেবারে শেষ মুহুর্তে অমিত শাহর দু’দিনের রাজ্য সফর বাতিল হয়ে যাওয়ার খবর শুনে স্বাভাবিক ভাবেই  মতুয়াদের মনে বিষাদের অন্ধকার নেমে আসে । এই সুযোগে  মতুয়াদের বিভ্রান্ত করতে তৃণমূল আসরে নেমে পড়তে পারে এই আশঙ্কা রাজ্য বিজেপির নেতাদের ছিল‌ই । শনিবার সকালে মমতাবালা ঠাকুর কটাক্ষ‌ও হজম করতে হয় বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরকে । পরিস্থিতির চাপে পাছে শান্তনু ঠাকুর  আবার বিগড়ে যান এই ভয়ে শনিবার সকাল সকাল ঠাকুরনগরে গিয়ে হাজির হন কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও মুকুল রায় । তাদের ঘিরে মতুয়া সম্প্রদায়ের ছোট একটি অংশ বিক্ষোভ দেখান বলেও খবর । তবে বাংলা জয়ে মতুয়া ভোটের গুরুত্বের কথা রাজ্য বিজেপির নেতাদের থেকে কোন‌ও অংশে কম বোঝেন না এই মুহুর্তে দেশে ইলেকশন মেকানিজমের সবথেকে ঝানু খিলাড়ি অমিত শাহ । শান্তনু ঠাকুরের সঙ্গে মুকুল রায়- কৈলাস বিজয়বর্গীয়র বৈঠক চলাকালীন‌ই কৈলাসকে ফোন করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়ে দেন , আগামী সপ্তাহেই ঠাকুরনগরে আসছেন তিনি । ফোন লাউডস্পিকার মোডে দিয়ে নিজের কথা বাকিদের শুনিয়ে দিতেও কৈলাসকে বলেন অমিত শাহ । খোদ শাহের মুখ থেকেই তাঁর আসার কথা শোনার পরেই বিজেপি নেতাদের মুখের ভার ভাব কেটে যায় । শাহি আশ্বাসে স্বস্তি মেলে শান্তনু ঠাকুরের‌ও। 

দিল্লিতে বসেই বাংলায় দলের নেতাদের হতাশা কাটান শাহ স্বয়ং


অন্যদিকে রবিবার হাওড়ার ডুমুরজলায় অমিত শাহর হাত থেকে পতাকা গ্রহণ করে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় , বৈশালী ডালমিয়া এবং প্রবীর ঘোষাল সহ একঝাঁক তৃণমূল নেতানেত্রীর । শাহি সফর বাতিল হ‌ওয়ায় এই মেগা  যোগদান পর্ব কীভাবে ম্যানেজ হবে তা নিয়েও ধন্ধে পড়ে যান রাজ্য বিজেপির নেতারা । এই  ক্ষেত্রেও মুশকিল আসান করেন সেই চাণক্য অমিত শাহ‌ই । রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সহ অন্যান্যদের দিল্লিতে উড়িয়ে আনতে চার্টার্ড বিমান দমদমে পাঠিয়ে দেন অমিত শাহ । শনিবার বিকেলের মধ্যেই দিল্লিতে পৌঁছে খোদ অমিত শাহের হাত থেকে পতাকা নিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়ে রাতেই কলকাতায় ফিরে আসার কথা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় , বৈশালী ডালমিয়া এবং প্রবীর ঘোষাল সহ বাকিদের । রবিবার ডুমুরজলায় বিজেপির সভায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানীর উপস্থিতিতে  সদ্য দলে যোগদানকারী এই নেতানেত্রীদের জনগণের সামনে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কথা একপ্রকার পাকা বলেই রাজ্য বিজেপি সূত্রে জানা গেছে । মোট কথা অমিত শাহের সফর হঠাৎ বাতিলের ঝটকায় রাজ্য বিজেপিতে যে হতাশা নেমে এসেছিল শাহর চটজলদি টোটকাতেই তা ভ্যানিশ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। 
অমিত শাহের হাই ভোল্টেজ বঙ্গ সফর বাতিলে রাজ্য বিজেপির নেতাদের হতাশা কাটল শাহের তুরন্ত টোটকাতেই

Pictures Courtesy – Official Facebook page of Amit Shah 


Leave a Reply

Your email address will not be published.